খেলা

অস্ট্রেলিয়ান ওপেনের শিরোপা জিতলেন জোকোভিচ

বছরের প্রথম গ্র্যান্ড স্লাম হবে মেলবোর্নে, আর জিতবেন নোভাক জোকোভিচ—এটাই যেন নিয়ম এখন! এবারও রাজত্বটা ধরে রাখলেন এই সার্বিয়ান। গতকাল ফাইনালে দানিল মেদভেদেভকে মাত্র এক ঘণ্টা ৫৩ মিনিটে ৭-৫, ৬-২, ৬-২ গেমে বিধ্বস্ত করেছেন জোকোভিচ। মাথার ওপর দিয়ে মারা ব্যাকহ্যান্ড ভলিতে চ্যাম্পিয়নশিপ পয়েন্টটি নিশ্চিত হতেই শুয়ে পড়েছিলেন রড লেভার অ্যারেনার নীল কোর্টে। রেকর্ড নবম অস্ট্রেলিয়ান ওপেনের শিরোপায় চুমু এঁকে ভালোবাসাই প্রকাশ করলেন প্রিয় ভেন্যুটা নিয়ে, ‘রড লেভার অ্যারেনা, প্রতিবছর তোমার প্রতি ভালোবাসা বাড়ছে আমার। ধন্যবাদ তোমাকে।’

রাফায়েল নাদালের রাজত্ব রোলাঁ গারোয়। সেখানে রেকর্ড ১৩ বার গ্র্যান্ড স্লাম জিতেছেন তিনি। জোকোভিচ মেলবোর্নে জিতলেন দ্বিতীয় সর্বোচ্চ নবম গ্র্যান্ড স্লাম। এ নিয়ে মেলবোর্নে জিতলেন টানা তৃতীয়বার। ২০০৮ সালে প্রথমবার চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পর শিরোপা জিতেছেন ২০১১, ২০১২, ২০১৩, ২০১৫, ২০১৬, ২০১৯, ২০২০ ও ২০২১ সালে। ১৮ গ্র্যান্ড স্লামে আরো কাছে পৌঁছালেন রজার ফেদেরার ও রাফায়েল নাদালের। টেনিস ইতিহাসে সবচেয়ে বেশি ২০টি গ্র্যান্ড স্লাম এই দুজনের। অথচ চোটের জন্য তৃতীয় রাউন্ড থেকেই সরে দাঁড়ানোর শঙ্কা তৈরি হয়েছিল জোকোভিচের। ইনজুরি নিয়ে খেলা চালিয়ে যাওয়াটা প্রভাব পড়তে পারে বাকি মৌসুমের জন্য। সেটা মেনে নিয়েই হাসলেন শেষ হাসিটাও, ‘উত্থান-পতনে ভরা একটি সপ্তাহ কাটল আমার। এভাবে শিরোপা জেতাটা সন্তুষ্টির।’

মেদভেদেভ একটা সময় অনুশীলনে সতীর্থ ছিলেন জোকোভিচের। টানা ২০ ম্যাচ জিতে ফাইনালে পৌঁছানোয় ফেভারিটও ভাবা হচ্ছিল এই রাশানকে। কিন্তু ২০১৯ ইউএস ওপেন ফাইনালে নাদালের কাছে হারার পর গতকাল জোকোভিচের কাছেও করলেন অসহায় আত্মসমর্পণ। এ জন্য হয়তো শেষ সেটে হারিয়ে ফেলেন মেজাজ। তাঁকে সান্ত্বনা জানালেন জোকোভিচ, ‘গ্র্যান্ড স্লাম জেতাটা সময়ের অপেক্ষা ওর জন্য।’

সম্পর্কিত নিউজ