জাতীয়

মেয়ের ধর্ষকদের বিচার চেয়ে একাই মানববন্ধনে দাঁড়ানো সেই বাবার পাশে শুভসংঘ

বগুড়ার ধুনট উপজেলায় মেয়ের সংঘবদ্ধ ধর্ষকদের ফাঁসি চেয়ে পথে নেমেছেন দৃষ্টিপ্রতিবন্ধী অসহায় এক বাবা। তিনি দ্রুত ন্যায়বিচারের দাবিতে বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করছেন। ধর্ষকদের ফাঁসি চেয়ে আদালত প্রাঙ্গনসহ বিভিন্ন জনবহুল এলাকায় পোস্টার লাগিয়েছেন, আইনজীবীর কাছে ঘুরছেন, মানববন্ধন করেছেন।

তবে এসব কর্মসূচি তিনি একাই পালন করছেন। ধর্ষকদের প্রভাবশালী পরিবারের ভয়ে ধর্ষণের শিকার মেয়েটির বাবার পাশে কেউ এগিয়ে আসেননি। অবশেষে সেই বাবা ও তার অসহায় পরিবারের পাশে দাঁড়িয়েছেন শুভসংঘের বন্ধুরা। দ্রুত ন্যায়বিচার কার্যকর করতে শুভসংঘের বন্ধুরা আইনি সহায়তা ও পরিবারটির নিরাপত্তা নিশ্চিতকরণসহ সব ধরনের সহযোগিতার হাত বাড়িয়েছেন।

আজ রবিবার সকালে শুভসংঘ ধুনট উপজেলা শাখার বন্ধু সংঘবদ্ধ ধর্ষণের শিকার মেয়েটির বাবার পাশে দাঁড়িয়ে ধর্ষকদের ফাঁসির দাবিতে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছেন। ধুনট উপজেলা কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার চত্বরে প্রায় এক ঘণ্টা সময় ধরে উক্ত কর্মসূচিতে শুভসংঘের সাথে সহমত প্রকাশ করে মুক্তিযোদ্ধা, ব্যবসায়ী, শিক্ষক ও শিক্ষার্থীসহ বিভিন্ন শ্রেণী-পেশার মানুষ অংশগ্রহণ করেন।

শুভসংঘ ধুনট উপজেলা শাখার সভাপতি রেজাউল হক মিন্টুর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মানববন্ধন কর্মসূচিতে বক্তব্য রাখেন ধুনট উপজেলা প্রতিনিধি ও শুভসংঘ ধুনট উপজেলা শাখার পরিচালক রফিকুল আলম, শুভসংঘ ধুনট উপজেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক ইমদাদুল হক ইমরান, সহসভাপতি আলী আজগর মান্নান, সাংগঠনিক সম্পাদক মাহবুবা আকতার, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক বাবুল ইসলাম, দপ্তর সম্পাদক জহুরুল মল্লিক, বীরমুক্তিযোদ্ধা আফতাব উদ্দিন, মতিয়ার রহমান, ফরিদ উদ্দিন, হায়দার আলী, সাংবাদিক আমিনুল ইসলাম শ্রাবণ, জাহিদুল ইসলাম, তারিকুল ইসলাম, শিক্ষিকা রোমানা আফরোজ, শিক্ষার্থী রামিশা আনজুম অর্থি, স্বেচ্ছাসবক রনি চক্রবর্তী, আশিক আহম্মেদ, আরিফুল আমিন প্লাবন, এনামুল হক নির্ঝর প্রমুখ।

উল্লেখ্য, উপজেলা রুদ্রবাড়িয়া গ্রামের মজিদ শেখের ছেলে ফজল ও তার ছোট ভাই নয়ন গত ৬ জুন রাতে চতুর্থ শ্রেণির এক ছাত্রীকে (১২) ধর্ষণ করে। এ ঘটনায় মেয়েটির বাবা থানায় মামলা করলে পুলিশ আসামিদের গ্রেপ্তার করে কারাগারে পাঠিয়েছে। এছাড়া ধর্ষক ফজল সেখা ও ধর্ষক নয়ন শেখের বিরুদ্ধে থানা থেকে আদালতে চার্জশিট দাখিল করা হয়েছে।

সম্পর্কিত নিউজ