সারাদেশ

সাংসদ হাজী সেলিমের অবৈধ স্থাপনা গুঁড়িয়ে দিয়েছে বিআইডব্লিউটিএ

বুড়িগঙ্গা তীরে সংসদ সদস্য হাজী সেলিমের অবৈধ স্থাপনা গুঁড়িয়েদিলো বিআইডব্লিউটিএ।

রবিবার সকালে সোয়ারীঘাট থেকে উচ্ছেদ অভিযান শুরু হয়ে বিকেলে ইমামগঞ্জ এলাকায় গিয়ে অভিযান শেষ করে বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ পরিবহণ কর্তৃপক্ষ। এ সময় অভিযানে নেতৃত্ব দেয়া কর্মকর্তা জানান, দখলকারী যতো শক্তিশালীই হোক না কেন তার বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে।

পুরান ঢাকার সোয়ারীঘাটে বুড়িগঙ্গা তীরে বেড়িবাঁধে নদীর জায়গা দখল করে স্থাপনা তৈরি করেছিলেন ঢাকা-৭ আসনের এমপি হাজী মোহাম্মদ সেলিম। তার প্রয়াত বাবার নামে নির্মিত চাঁন সরদার কোল্ড স্টোরেজের সামনের বর্ধিত অংশ অবৈধ হওয়ায় তা ভেঙে দেয় বিআইডব্লিউটিএ।

উচ্ছেদ অভিযানে বুড়িগঙ্গা তীরে সাংসদ হাজী সেলিমের অবৈধ স্হাপনা গুঁড়িয়ে দেয়া হচ্ছে।
– (ছবি সংগৃহীত) 

অভিযানে নেতৃত্বে দেয়া বিআইডব্লিউটিএ’র যুগ্ম পরিচালক গুলজার আলী জানান, স্থাপনাটি নদী তীরের দশফিট জায়গা দখল করে নির্মাণ করা হয়েছিলো। তবে, অভিযান শুরুর আগে নদীর জায়গা দখল করে নির্মিত হাজী সেলিমের প্রতিষ্ঠান মদিনা ট্যাংকের গোডাউন তার লোকজনই ভেঙে সরিয়ে নেয়।

এছাড়া বেড়িবাঁধ ঘেঁষে গড়ে ওঠা সোয়ারীঘাট মাছের আড়ৎ গুঁড়িয়ে দেয়া হয়। এ সময় মৎস্য আড়ৎ সমিতির নেতারা বিক্ষোভের চেষ্টা করলেও অস্থায়ী স্থাপনাগুলো ভেঙে ফেলা হয়।

দখলকারী যতো শক্তিশালীই হোক না কেন, তাদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানান অভিযানে নেতৃত্বদানকারী কর্মকর্তা বিআইডব্লিউটিএ’র যুগ্ম পরিচালক গুলজার আলী।

ঢাকার চারপাশের নদ–নদীর তীর পুনর্দখল ঠেকাতে ২২ ও ২৩ নভেম্বর থেকে বাবুবাজার এলাকা থেকে উচ্ছেদ অভিযান শুরু করে বিআইডব্লিউটিএ। সোমবার ইমামগঞ্জ থেকে লোহারপুল পর্যন্ত অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করার কথা রয়েছে।

সম্পর্কিত নিউজ